সিলেটে ব্যবসায়ীদের মূসক (প্যাকেজ ভ্যাট) প্রদানে উদ্বুদ্ধকরনের জন্য সিলেট আবাগারী ও ভ্যাট বিভাগ উদ্যোগে লিফলেট বিতরন

প্রকাশিত: ৮:০১ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০১৯

ডায়ালসিলেট ডেস্ক :: ’রাজস্বের প্রবৃদ্ধি ’ ’টেকসই সমৃদ্ধি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে আবগারী ও ভ্যাট বিভাগ সিলেট আয়োজিত ক্ষুদ্র ও খুচরা ব্যবসায়ী পর্যায়ের মূসক (প্যাকেজ ভ্যাট) প্রদানে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।

আজ বুধবার বিকেল ৪টায় নগরীর বিভিন্ন মার্কেটের দোকানগুলোতে লিফলেট বিতরনের মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের মূসক (প্যাকেজ ভ্যাট) প্রদানে উদ্বুদ্ধকরনের জন্য আহবান জানান আবাগারী ও ভ্যাট বিভাগ সিলেট এর বিভাগীয় কর্মকর্তা আহমেদুর রেজা চৌধুরী ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ, সিলেটের আল-হামরা শপিং সিটি, সিলেট সিটি সেন্টার, ব্লু-ওয়াটার শপিং সিটি এবং শুকরিয়া মার্কেটের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকবৃন্দসহ কাস্টমস কর্মকর্তাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের এসআরও নং ১৪৭-আইন/২০১৮/৭৯৭-মূসক,তারিখ ০৭/০৬/২০১৮ ইং মোতাবেক ক্ষুদ্র ও খুচরা পর্যায়ে ব্যবসার ক্ষেত্রে সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকার জন্য প্যাকেজ ভ্যাট এর পরিমান ২০০০০/- এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকা ব্যতীত অন্যান্য এলাকার জন্য প্যাকেজ ভ্যাট এর পরিমান ৭০০০/- ধার্য্য করা হয়েছে।

দেশের উন্নয়নের স্বার্থে ব্যবসায়ীদের পরিশোধিত ভ্যাট সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের মূলভিত্তি। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হতে হলে ব্যবসায়ীগণ কর্তৃক মূসক পরিশোধের বিকল্প নাই।

এতে দেশ এগিয়ে যাবে এবং দেশের উন্নয়ন হবে। উক্ত উদ্ধুদ্ধকরন কর্মসূচী থেকে নির্ধারিত হারে প্রযোজ্য মূসক (প্যাকেজ ভ্যাট) সরকারী কোষাগারে ট্রেজারী চালানের মাধ্যমে অর্থনৈতিক কোড নং ১-১১৩৩-০০১৮-০৩১১ তে যথাশীঘ্রই জমা প্রদানের জন্য অনুরোধ জানানো হয়।
সময়মত মূসক পরিশোধে ব্যবসায়ীদের স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণ, স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা পালন করবে।